Posts

শেয়ারিং ইজ কিউরিং এবং কান পেতে রই

Image
  শেয়ারিং শব্দটার সাথে আমরা প্রায় সবাই পরিচিত। শেয়ারিং বলতে বুঝি কোন কিছু নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেওয়া। আধুনিক প্রযুক্তির ছোঁয়ায় আমরা নিত্য নতুন শেয়ারিং ধারণার সাথে পরিচিত হচ্ছি, যেমন রাইড শেয়ারিং, যেকোন সার্ভিস শেয়ারিং, ইত্যাদি। প্রতিটা শেয়ারিং এর ক্ষেত্রে আমাদের কিছু ইন্টারেকশন হয়। এই ইন্টারেকশন কারও জন্য সুখকর অনুভূতির জন্ম দেয়, কারো জন্য অস্বস্তিকর, কিংবা কারো জন্য বিরক্তিকর অথবা ভয়ংকর অভিজ্ঞতা উপহার দেয়। এই যে ছোট্ট একটি ইন্টারেকশন এর ঘটনা আপনার মাঝে যে অনুভূতি ও চিন্তার উদ্রেক করলো সেটা আপনি হয়তো শেয়ার করেন আপনার কলিগ, বন্ধু বা পরিবারের কোন সদস্যের সাথে। এখন ভাবুন, প্রতিদিন এমন শত শত ইন্টারেকশন করছেন, বহু মানুষের সাথে, বহু প্রতিষ্ঠানের সাথে। এমনকি অধিকাংশ ইন্টারেকশনের সময় অনুভূতির কথা খেয়ালই থাকে না, কিংবা সচেতন ভাবে চিন্তাও করি না আমরা। দিন শেষে ভুলে যাই কি কি চিন্তা ও অনুভূতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলাম, শুধু মাত্র আমাদের বিচারে গুরুত্বপূর্ণ কিছু অভিজ্ঞতা মাথায় থাকে সেটাও সময়ের পরিক্রমায় হারিয়ে যায়। এইবার আরেকটু লম্বা সময়ের জন্য চিন্তা

We will miss seeing you!

At Kaan Pete Roi, we study suicide and try to work towards preventing it. We try to connect people in pain to people who can help hold the pain. But we are still never ready for it when it happens. We are so shocked, and so saddened, to hear the news of Sushant Singh Rajput’s death today, and to find out also about Disha Salian’s death a few days before. Many people are asking – why. Why would someone so successful feel compelled to do this? I do not know why. Perhaps those close to them have a deeper understanding. In many cases they do; in many, they do not. I would gently remind everyone that someone’s outward ‘success’ does not always have a bearing on inner pain, emotions, and thoughts. Every single person in the world has a side that is theirs and no one else’s; their own battles, their own betrayals and heartbreaks, illnesses and health, successes and failures. It is not always for us to understand. I request everyone to take care in how they choose to speak and share new

আমার প্রিয় ৫০টি বই - মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আমার প্রিয় ৫০টি বই মুহম্মদ জাফর ইকবাল প্রথমেই বলে রাখি, কেউ যেন মনে না করে এই পঞ্চাশটি বইয়ের বাইরে আমার প্রিয় বই নেই, অবশ্যই আছে, এই বইগুলো দিয়ে আমি শুরু করেছি। কেউ এক নজর দেখলেই বুঝতে পারবে সমকালীন বাংলাদেশের লেখকদের কোনো বই এখানে নেই (শুধু শাহীন আখতারের তালাশ বইটি রেখেছি, কেউ এটা পড়লেই বুঝতে পারবে কেন তাঁর বইটা আলাদাভাবে রেখেছি।) মনে হচ্ছে এই তালিকাটিতে অনেকের আগ্রহ আছে যেটা দেখে আমি অসম্ভব খুশি হয়েছি।সমকালীন লেখকদের বইয়ের নাম দেয়া হলে যদি ভুলে কারো নাম লিখতে ভুলে যাই, কিংবা এখনো পড়া হয়নি বলে যদি কারো নাম দেওয়া না হয় তাহলে সেই লেখকের উপর আমার পক্ষ থেকে অনেক বড় অন্যায় করা হবে, আমি সেটা করতে চাই না, সেজন্য এই তালিকায় তাদের কোনো বইয়ের নাম নেই । সমকালীন লেখকদের নাম আমি আরেকটু চিন্তা ভাবনা করে দেব। এটা সত্যিকারের প্রিয় বইয়ের তালিকা হলে এক লেখকের অনেক বই চলে আসতো, কিন্তু ইচ্ছা করে একজন লেখকের মাত্র একটা করে বইয়ের নাম দিয়েছি। তালিকায় কোন বই আগে এসেছে, কোনটা পরে এসেছে তার পেছনে কোনো নিয়ম নেই, এটি পুরোপুরি এলোমেলো !          এখানে আরেকটা বিষয় আমি সবাইকে মনে করিয়ে দিতে চাই।